Do you want to remove all your recent searches?

All recent searches will be deleted

Watch fullscreen

Interview of justice and chief election comissioner abdur rouf with shaifur rahman sagar Part 1

EuroBDNews
6 years ago|75 views
Interview of former justice and chief election comissioner of bangladesh mr abdur rouf.He is veteran justice and very popular personality of bangladesh. he has disclosed his experience of previous life and current life story in exclusive interview of eurobdnewsonline.com
বিচারপতি আব্দুর রউফ যাকে বাংলাদেশের মানুষ একজন সৎ ও নিষ্ঠাবান মানুষ হিসেবেই সবাই চেনে । তিনি বহু খ্যাতির মাঝে সাধারন মানুষ হয়ে বাংলার প্রতিটি মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন । ইউরোবিডি নিউজ অনলাইন পত্রিকায় তার একান্ত সাক্ষাৎকারের কিছু অংশ নিম্নে তুলে ধরা হলো ।
* আমার জন্ম ১৯৩৪ সালের ১লা ফেব্রুয়ারী ময়মনসিং সদরের মোতালেব থানায়।আমার বাবা ১৯০৬ সালে ময়মনসিংয়ের প্রথম মুসলিম ডাক্তার। আমারা ছয় বোন, চার ভাই, ছেলেবেলা ঘোরামডি স্কুলে লেখা পড়া করেছি। ময়মনসিং জেলা স্কুলে ক্লাস সেভেনে ভর্তি হই। সেখান থেকে ১৯৫১ সালে মেট্রিক পাশ করি। এর পরে ময়মনসিং আনন্দ মোহন কলেজ থেকে আইএসসি ও বিএসসি পাশ করি।

* ঢাকা ইউনিভার্সিটিতে ইন্টারন্যাশনাল রিলেশন এর উপর মাস্টারস করি। সঙ্গে সঙ্গে ল পাস করি।তখন ঢাকা হাইকোর্টে আইন ব্যবসা শুরু করি। ১৯৫২ ছাত্র জীবনে কমনিস্ট পার্টির রাজনীতির সাথে জড়িত হই। ছাত্রলীগের ময়মনসিং এর ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলাম।তারপর যুবলীগ করি। সেখান থেকে ছাত্র ইউনিয়ন গঠন করি। ছাত্রজীবন শেষ করার পর আর রাজনীতির সাথে সম্পর্ক ছিলনা।যখন প্রাকটিস শুরু করি তখন আর পলিটিক্স করিনি।

* আমি ১৯৬২ সালে ঢাকা হাইকোর্টে যোগদান করি।১৯৭০ সালে আমি বিয়ে করি।জজদের বেতন কম থাকার কারনে জজের জন্য সুযোগ থাকলেও আমি যোগদান করিনি।

* আমি ছিলাম সিবিল ল'য়ার। আমাকে জজ বানানোর জন্য অনেক চেস্টা করেছে।কিন্তু তখনতো জজের বেতন কম, আমার হাত বড় হয়ে গেছে আমার চলছে না। তখন আমার চেম্বারে প্রতিদিন ৩ থেকে ৪শত টাকা খরচ আছে। আমার বাবা ও মা ১৯৬২হজ্বে গিয়েছিলেন।হজ্বের ২৯ দিনের দিন একদিনের জ্বরে বাবা ইন্তেকাল করেন। তার ঐখানে দাফন হয় জান্নাতুল মাওনাতে।
* আমার মা মারা গেছে ১৯৯৩ ।
* আমি ১৯৮২ সালের ২৯ জানুয়ারীতে মা এবং স্ত্রীর অনেক অনুরোধের কারনে জজ হিসেবে যোগদান করি।
* আমি জজ হওয়ার পরে মার্চ মাসের ২৪ তারিখে মার্শাল ল শুরু হল।
* আমি জজ হওয়ার কয়েকদিনের মধ্যেই আমাকে কাকরাইলে ৬-৭ বিঘা জমির একটা বাসা দেওয়া হলো।
* কিন্তু আমিতো মনে মনে ঠিক করেছি আমি আর কনটিনিউ করব না।
* কিন্তু আমার স্ত্রীর তো খুব পছন্দ হয়েছে।আমি একসেট ছোফা বাসায় পাঠিয়ে দিয়ে কুমিল্লা চলে গেলাম।
* আমি ঐ বাসায় ছিলাম ২০ বছর ।
* কুমিল্লাতে ছিলাম ৩ বছর, ১ বছর সিলেট।

Browse more videos